ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোংলা,পায়রা ৭ এবং চট্টগ্রামবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় এর জন্য মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর সংকেত এবং চট্টগ্রামবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলেছেন আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ঘূর্ণিঝড় “বুলবুলের” কারণে সকল প্রকার নৌ-চলাচল বন্ধ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।আর বঙ্গোপসাগরের উত্তরে অবস্থানরত সকলকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলেছেন।
শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম,মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর সংকতে জারি দেখাতে বলা হয়েছিল।
বুধবার দিন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের নতুন করে সৃষ্টি হয়।পরে এর নাম করণ ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ রাখা হয়।আস্তে আস্তে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ শক্তি সঞ্চার করে আরো শক্তিশালী হচ্ছে।
শুরুর দিকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের বাতাসের বেগ ছিল ঘণ্টায় ৮৫-৯০ কিলোমিটার।যা শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত ১১০-১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।
আরো জানা গেছে,ঘূর্ণিঝড়টি ঘন্টায় ১৩০ কিলোমিটার  পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে।
অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছা সেবক প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছে  দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।
ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় চট্টগ্রামে ৪৭৯টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্ততু করে রাখা আছে। আর ২৮৪টি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে।